1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
বড়পুকুরিয়ায় ঘরবাড়ী ফাটলের ক্ষতিপূরণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন। আইবিএন শেয়ার হোল্ডারস মিটআপ রেদোয়ান আহমেদ। বিজয়ী প্রার্থীকে ফুলের মালা পরিয়ে ভাইরাল দৌলতপুরের ওসি রফিকুল নওগাঁর বলিহারে বিট ও কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত খন্ডবিখন্ড,মরদেহ উদ্ধার এমপি আনারের,উঠে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য। খাজা শাহ্ নূর দরবেশ মৌলা (রহঃ) এঁর চন্দ্রবার্ষিকী ওফাত শরীফ উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে শান্তির মঙ্গল শোভাযাত্রায় হাজারো মানুষের ঢল লামার উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী আবারও চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল নতুন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন দুইজন নওগাঁয় ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে যুবকের আত্নহত্যা কুষ্টিয়া জেলা আ’লীগের সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

শিল্প মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন মোহিত উর রহমান শান্ত

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৬৯ বার পড়া হয়েছে

 

ময়মনসিংহ থেকে শিব্বির আহমদের প্রতিবেদন

এর আগেও সময়ের পথে প্রকাশিত হয় ২০২৪ সাল যেন শুরুই হলো ময়মনসিংহ সদরের জন্য সুখবরের বছর।

ময়মনসিংহ (৪) সদর আসনে জনসাধারণ পেয়েছে বহু বছর পর সরকার দলীয় মাননীয় সংসদ সদস্য। পেয়েছে ১৯৯২ সনের এসএসসি বন্ধুদের ও আপামর জনগনের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলাফল। পেয়েছে আজকের মাননীয় সাংসদ জনাব মোহিত উর রহমান শান্তকে। মাননীয় সাংসদ আজকে জীবনের প্রথম সংসদের ভাষণ দিতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে যান। মনে পড়ে যায় তার বাবার কথা। বহু বছর আগে বাবা তাকে নিয়ে আসতে চেয়েছিলেন কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস আজকের এই সাংসদ জনাব জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত সেদিন বেশ অসুস্থ হয়ে যায় সেই হেতুতে সেদিন সে আর তার বাবার সাথে সংসদে আসতে পারেনি। ঠিক তখন থেকে জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত মনে মনে ধারণ করেন আমি একদিন সংসদে যোগদান করব আপামর জনগণের হয়ে, প্রতিনিধিত্বের দাবি নিয়ে সংসদে যোগদান করব। আজকে তার আশা পূরন হয়েছে। মহান সৃষ্টিকর্তা পূরণ করেছেন তার এই পবিত্র মনো আশা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বদৌলতে তিনি আজ মহান জাতীয় সংসদে জনগনের প্রতিনিধি হিসাবে ময়মনসিংহ (৪) সদর আসনের নৌকার মাঝি হয়ে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন বিপুল ব্যবধানে। তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে। তার এই সুখবরে আজ ময়মনসিংহ বাসীও আনন্দিত।
জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত’র রাজনৈতিক কথক অনেক,তবুও যে ছোট্ট করে বলতে হয়। অনেক সময় না বললে কিছু অজানাই থেকে যায়। তাই কিছু না বললেই নয়।
জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত’র বাবা ছিলেন একজন খাঁটি বীর মুক্তিযোদ্ধা,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাহেবের ঘনিষ্ঠ সহচর। নাম তার- “বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান স্যার”। তিনি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক দিক থেকে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছেন সব সময়।
হয়েছেন সাংসদ, হয়েছেন প্রতিমন্ত্রী, হয়েছেন পূর্ণাঙ্গ ধর্মমন্ত্রী, জেল- জুলুম জরিমানা স্বৈরাচার সরকার আমলে, অগ্নিশাসক জামাত-বিএনপি আমলে খাটতে হয়েছে অনেক। তবু পিছ পা হননি এই বীর মুক্তিযোদ্ধা। জামাত- বিএনপির অগ্নি শাসকের আমলে মন্ত্রিত্বের প্রস্তাবনা পেয়েও ফিরিয়ে দিয়েছেন, স্বৈরশাসক এরশাদ সরকারের আমলেও মন্ত্রিত্বের প্রস্তাবনা পেয়েও ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। তারই উত্তরসূরী সুযোগ্য সন্তান জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত।
এই মোহিত উর রহমান শান্ত ময়মনসিংহ জিলা স্কুল থেকে এসএসসি ও আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে উচ্চশিক্ষার জন্য দেশের বাইরে চলে যান, দেশের বাইরে লেখাপড়া শেষ করে রাজনীতিতে পুরোপুরি আবিষ্ঠ হন৷ এর আগে স্কুল পড়ুয়া অবস্থায় ছাত্রলীগের সাথে উতোপ্রোত জড়িত হন। নিজের কাঠখড় পুড়িয়ে আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে থাকা অবস্থায় ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন। এরপর বাবার ছোট্ট আঙ্গুল ধরতে ধরতে রাজনীতিতে নিজেকে পুরো রাজনীতিবিদ হিসেবে ময়মনসিংহে জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হন। আজকে ময়মনসিংহের রাজনীতিতে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন দুইবার। জনপ্রিয় এই ব্যক্তিটি জনপ্রিয়তাটাকে ধরে রেখেছেন বাবার আদর্শকে বুকে লালন করেই, গরীব দুঃখী মানুষের পাশেই থেকেছেন, বুকে নিয়েছেন অত্যন্ত হতদরিদ্রদের, বিনয়ী ভদ্র ভাষায় থেকে নিজেকে উপস্থাপন করেছেন আপামর জনগণের কাছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত’র জনপ্রিয়তা ও রাজনৈতিক প্রজ্ঞাকে মূল্যায়ন করে, রাজনৈতিক ভাষণকে মূল্যায়ন করে, মেধা মননকে মূল্যায়ন করে, রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে আজকে জাতীয় সংসদের ভাষণের পর তাকে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেন।এই প্রাপ্তি তার বাবার,এই প্রাপ্তি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর, এই প্রাপ্তি ময়মনসিংহ বাসির।
আমরা ময়মনসিংহবাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমরা ১৯৯২ সনের এসএসসি ব্যাচের বন্ধুরাও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমরা ময়মনসিংহ বাসী অভিনন্দন জানাচ্ছি জনাব মোহিত উর রহমান শান্তকে। আমরা সময়ের পথের পক্ষ থেকে জনাব মোহিত উর রহমান শান্ত কে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় : ইয়োলো হোস্ট