1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
বড়পুকুরিয়ায় ঘরবাড়ী ফাটলের ক্ষতিপূরণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন। আইবিএন শেয়ার হোল্ডারস মিটআপ রেদোয়ান আহমেদ। বিজয়ী প্রার্থীকে ফুলের মালা পরিয়ে ভাইরাল দৌলতপুরের ওসি রফিকুল নওগাঁর বলিহারে বিট ও কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত খন্ডবিখন্ড,মরদেহ উদ্ধার এমপি আনারের,উঠে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য। খাজা শাহ্ নূর দরবেশ মৌলা (রহঃ) এঁর চন্দ্রবার্ষিকী ওফাত শরীফ উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে শান্তির মঙ্গল শোভাযাত্রায় হাজারো মানুষের ঢল লামার উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী আবারও চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল নতুন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন দুইজন নওগাঁয় ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে যুবকের আত্নহত্যা কুষ্টিয়া জেলা আ’লীগের সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

এক বন্ধুর শোকে অপর বন্ধুর মৃত্যু l চট্টগ্রাম হাটহাজারী

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১২৮ বার পড়া হয়েছে

এক বন্ধুর শোকে অপর বন্ধুর মৃত্যু l চট্টগ্রাম হাটহাজারী
মোহাম্মদ মাসুদ নিজস্ব প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে এক বন্ধুর শোকে অপর বন্ধুর মৃত্যু! মরণও হলেন স্মরণীয়। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি যা কোনমতেই মেনে নেওয়ার মতো নয় যা কখনো ঘটেনি কেউ কখনো দেখিনি এলাকাবাসীসহ আশপাশে অঞ্চলের মানুষ। এক বন্ধুর মৃত্যুর খবর শুনে অপর এক বন্ধুর মৃত্যু হয়েছে। এদের একজনের নাম মো: আজম (২৮) ও অপরজন আরাফাত (২৮)।
গতকাল সোমবার হাটহাজারী পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড আজিমপাড়া সাব্বি বাপের বাড়িতে হৃদয়স্পর্শি এ ঘটনা ঘটে। একই বাড়ির দুই বন্ধুর একই দিনে মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। আজম স্টিল আলমারি দোকানের কারিগর আর আরাফাত ছিল পরিবহন শ্রমিক।

জানা যায়, শিশুকাল থেকেই একই বাড়ির আজম ও আরাফাত উভয়ে বন্ধু ছিলেন। আজম ওই বাড়ির নুরুল ইসলাম ওরফে বাঘের ছেলে ও আরফাত একই বাড়ির মৃত মুছা সওদাগরের ছেলে।

সরজমিনে জানা গেছে,আগের দিন রোববার রাতে মো: আরফাতের বিয়ে উপলক্ষে দুই বন্ধু মিলে শশুরবাড়িতে নাশতা পাঠাতে বাজার করে। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ আরফাত স্ট্রোক করে মারা যান। খবর পেয়ে আজম বন্ধুর ঘরে যায়। নিজ হাতে বন্ধুর লাশের মাথায় টুপি পড়িয়ে দেয়। পরে লাশ গোসলের প্রস্তুতি নেয়ার প্রাক্কালে বুকে ব্যথা করছে বলে জানায় আজম।

দ্রুত হাটহাজারী উপজেলার স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা সঙ্কটাপন্ন দেখে চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল চমেকে প্রেরণ করেন। চমেকে নেয়ার পথেই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মারা যান আজম। আজমের দুই ও তিন বছর বয়স্ক একটি ছেলে ও মেয়ে সন্তান রয়েছে।

আজম ছিল স্টিল আলমারি দোকানের কারিগর আর আরাফাত ছিল পরিবহন শ্রমিক।গতকাল বাদ আসর আরফাত ও বাদ এশা আজমের নামাজে জানাজা শেষে বাড়ির একই কবরস্থানে তাদের দাফন করা হয়।এ ঘটনায় এলাকার শোকের ছায়া বিরাজ করছে। শত শত মানুষ দুই বন্ধুকে দেখার জন্য ভিড় করছে।

মৃত্যুর সাথে সাথে ব্যাপক আলোচিত হয় সোশ্যাল মিডিয়া সহ এলাকা ও আশপাশ অঞ্চল দেশজুড়ে ও সকলের মুখে মুখে। বন্ধুর জন্য বন্ধুর মৃত্যু অবাক আশ্চর্য এবং বিস্ময় হতবাক হচ্ছে যে শুনে সকলেই। সেই সাথে এলাকায় নেমে আছে শোকের ছায়া। পরপারেও ভালো থাকুক বন্ধুরা। আমিন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় : ইয়োলো হোস্ট